Breaking News
Home / খেলাধুলা / অ্যামব্রোসকে কড়া জবাব দিলেন গেইল

অ্যামব্রোসকে কড়া জবাব দিলেন গেইল

কয়েক বছর আগেও ক্রিস গেইলকে অবসর নেওয়ার জন্য পরামর্শ দিয়েছিলেন কার্টলি অ্যামব্রোস। এবার বিশ্বকাপের আগে গেইলকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেন অ্যামব্রোস এবং তাতেই ক্ষেপে গিয়ে জবাব দিলেন গেইল। কয়েকদিন আগে একটি রেডিও অনুষ্ঠানে অ্যামব্রোস বলেন যে, গেইলের বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া উচিত হয়নি।

গত কয়েকটি হোম সিরিজে গেইলের ব্যাট থেকে খুব বেশি রান আসেনি বলেই এই দাবি করেন অ্যামব্রোস। তিনি বলেছিলেন, “আমার কাছে সে অটো চয়েজ না। গত কয়েকটি হোম সিরিজে সে তেমন কোনো রান করতে পারেনি। যদি সে হোম সিরিজেই ভালো খেলতে না পারে, তাহলে বিশ্বকাপে যাওয়ার দরকার নেই।

নিজের দিনে সে ধ্বংসাত্মক ব্যাটার কিন্তু গত দেড় বছরে তার পারফর্ম দেখে আমি আশ্বস্ত হতে পারছি না যে, বিশ্বকাপে সে তেমন কিছু করতে পারবে।” এছাড়া গেইলের বয়স নিয়েও খোঁচা দেন অ্যামব্রোস। তিনি বলেন, “এখন ক্রিস গেইল আর সেই ক্রিস গেইল নেই, যাকে আমরা বছরের পর বছর দুর্দান্ত খেলতে দেখেছি।

তার বয়স এখন ৪২ বছর। তার প্রতিবর্তী ক্রিয়া অবশ্যই এখন নিম্নগতিতে যাচ্ছে। তার হাত ও চোখ আর আগের মতো করে কাজ করে না। গেইল আর সেই আগের মতো জাদু দেখাতে পারে না।” অ্যামব্রোসের এমন অভিযোগ অবশ্য উড়িয়ে দিয়েছেন ৪২ বছর বয়সী ‘ইউনিভার্সাল বস’ গেইল।

আরেকটি রেডিও অনুষ্ঠানেই অ্যামব্রোসের কথার জবাব দেন তিনি। তাই এখন আর অ্যামব্রোসের প্রতি কোনো শ্রদ্ধাবোধও তার নেই বলে জানান গেইল। গেইল বলেন, “আমি আপনাকে ব্যক্তিগতভাবেই বলছি, আপনি কার্টলি অ্যামব্রোসকে বলে দিয়েন যে, ইউনিভার্সাল বস ক্রিস গেইলের কাছে তার জন্য কোনো শ্রদ্ধাবোধ নেই।

আমি যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজ যোগ দিয়েছিলাম, তখন তাকে খুবই শ্রদ্ধা করতাম। তবে এখন আমি মন থেকেই বলছি। আমি জানি না ঘটনা কী, তবে অবসরের পর থেকেই সে আমার বিরুদ্ধে কথা বলে।” গেইল দাবি করেন, নজরকাড়ার জন্য অ্যামব্রোস এমন আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন।

গেইল বলেন, “আমি জানি না যে আসলেই তিনি নজরকাড়ার জন্য এসব নেতিবাচক মন্তব্য করেন কিনা। তবে তিনি মনোযোগ আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছেন এবং তিনি মনোযোগ আকর্ষণ করাতে চাচ্ছিলেন, আমি তাকে তা দিলাম।” ইউনিভার্সাল বস জানান, অ্যামব্রোসের সাথে আবার দেখা হলে তিনিও তাকে পরামর্শ দিবেন,

নেতিবাচক কথা বলা বন্ধ করে বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সমর্থন জানাতে। অন্য দলের সাবেক খেলোয়াড়রা তাদের দলের পাশে থাকলেও অ্যামব্রোস কেন সবসময় তাদের নেতিবাচক সমালোচনা করেন সেই প্রশ্নও ছুঁড়ে দেন গেইল। গেইলের ভাষায়, “অ্যামব্রোসের সাথে আমার সব শেষ।

আবার যখনই তার সাথে দেখা হবে, আমি তাকে বলবো যে, নেতিবাচক কথাবার্তা ছড়ানো বন্ধ করুন এবং বিশ্বকাপে দলকে সমর্থন করুন। এই দলটা নির্বাচন করা হয়েছে এবং সাবেক খেলোয়াড়দের সমর্থনের প্রয়োজন আমাদের আছে।

আমাদের নেতিবাচক মন্তব্যের দরকার নেই। অন্য দলের সাবেক খেলোয়াড়রা তাদের দলকে সমর্থন করে, তাহলে এমন বড় একটা আসরে আমরা কেন আমাদের দলকে সমর্থন করতে পারি না?”

এক নজরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড : কাইরন পোলার্ড-(অধিনায়ক), নিকোলাস পুরান-(সহ অধিনায়ক), ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, ডোয়াইন ব্রাভো, রস্টন চেজ, আন্দ্রে ফ্লেচার, ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেল, শিমরন হেটমায়ার, এভিন লুইস, ওবেদ ম্যাকয়, রবি রামপাল, ওশান থমাস, হেইডেন ওয়ালশ জুনিয়র, লেন্ডল সিমন্স।

Check Also

আমরাও মানুষ, সমালোচনা হলে স্বাস্থ্যকর হওয়া উচিত : রিয়াদ

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হারের পর বিসিবি ও মিডিয়ার সমলোচনায় ব্যধিত হয়েছেন ক্রিকেটাররা। সুপার ‘১২’ নিশ্চিত হওয়ার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *