Breaking News
Home / খেলাধুলা / দারুণ সুখবর পেলেন মুস্তাফিজরা

দারুণ সুখবর পেলেন মুস্তাফিজরা

জমে উঠেছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) শেষ মুহূর্তের খেলা। হারলে বাদ, জিতলে প্লে অফ–এমন সমীকরণ নিয়েই মাঠে নামছে লড়াইয়ে টিকে থাকা দলগুলো। আর এমন কঠিন পরিস্থিতিতে দিল্লি ক্যাপিটালসের জন্য সুখবর, তাদের হার্ড হিটার ওপেনার পৃথ্বী শ-এর ফিরে আসা।

জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মুস্তাফিজদের এই ব্যাটার দলের শেষ তিনটি ম্যাচ মিস করলেও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে ফিরছেন মাঠে। শনিবার (১৪ মে) টাইমস অব ইন্ডিয়ার রিপোর্টে বলা হচ্ছে, পৃথ্বী শ দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন এবং লিগের ও টুর্নামেন্টে দিল্লির বাকি ম্যাচে খেলতে দেখা যাবে পৃথ্বী শ-কে।

আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসের অন্যতম ওপেনার পৃথ্বী শ শেষবার দলের হয়ে গত ১ মে খেলেছিলেন লখনৌ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে। এরপর অজানা জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। মিস করেছেন দলের শেষ তিনটি ম্যাচ।

কিছুদিন আগেও দলের সহকারী কোচ শেন ওয়াটসন জানিয়েছেন, চলতি আসরে হয়তো আর দেখা যাবে না পৃথ্বী শ-কে। এর আগে গত ৫ মে হায়দরাবাদের বিপক্ষে জয়ের পর দিল্লির অধিনায়ক রিশভ পন্ত জানিয়েছিলেন, হাসপাতালের রিপোর্ট অনুযায়ী পৃথ্বী শ টাইফয়েড জাতীয় সমস্যায় আক্রান্ত।

এদিকে চলতি আসরে দিল্লির হাতে আছে আর মাত্র দুটি ম্যাচ। প্লে অফের টিকিট নিশ্চিত করতে এই ম্যাচগুলো জয়ের বিকল্প নেই মুস্তাফিজদের। এমন ম্যাচে দলের অন্যতম সেরা ওপেনারকে ফিরে পাওয়া মুস্তাফিজদের জন্য বড় সুখবরই বটে। আগামী ১৬ মে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে ও ২১ মে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে আসরের শেষ ম্যাচ খেলবে দিল্লি।

এদিকে এনরিখ নর্কিয়ার প্রত্যাবর্তনে টাইগার পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের কপাল পুড়েছে। জাতীয় দল বাদ দিয়ে যেই আইপিএল খেলতে যাওয়ায় দেশের ভেতর সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন; সেই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও নিয়মিত সুযোগ মিলছে না তার।

সবশেষ রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ম্যাচসহ টানা তিন ম্যাচ সাইড বেঞ্চে বসে কাটিয়েছেন। তার পরিবর্তে খেলা প্রোটিয়া তারকা এনরিখ নর্কিয়া ফর্মে ফেরায় বাকি ম্যাচগুলোতেও মুস্তাফিজের দলে ফেরার সম্ভাবনা ক্ষীণ।

এখন পর্যন্ত ৮টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। সেগুলোর পাওয়ার প্লেতে দুর্দান্ত বল করলেও রিদম ধরে রাখতে পারেননি ফিজ। শেষদিকে গিয়ে প্রচুর রান দিয়েছেন, বিনিময়ে খুব বেশি উইকেটও পাননি। ৩২ ওভারে ৭.৬২ ইকোনমিতে ৮ উইকেট শিকার করেছেন মুস্তাফিজ।

অবশ্য আইপিএলে মুস্তাফিজ ২০১৬ সালের পর কখনোই ম্যাচপ্রতি ১ উইকেটের বেশি পাননি। ২০১৬ সালে সবাইকে চমকে দেওয়ার বছরেও ১৬ ম্যাচে তার ১৭ উইকেট ছিল। ১২ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের পাঁচে অবস্থান করছে মুস্তাফিজরা। সমান ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে তিনে রাজস্থান রয়্যালস আর ১৩ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে চারে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু।

Check Also

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে রাহুলকে অধিনায়ক করে ভারতের টি-টোয়েন্টি দলে ডাক পেলেন কাশ্মীরি গতিদানব

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আগামী মাসে ঘরের মাটিতে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে ভারত। সিরিজে লোকেশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.