Home / খেলাধুলা / মেসিকে মাঠ থেকে তোলার কারণ জানলেন পিএসজি কোচ

মেসিকে মাঠ থেকে তোলার কারণ জানলেন পিএসজি কোচ

পিএসজিতে লিওনেল মেসির প্রথম মৌসুমটা ছিল না ঠিক মেসিসুলভ। তবে এ মৌসুমে মেসি ফিরেছেন পুরনো ছন্দে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বেনফিকার বিপক্ষে গতরাতে করেছেন দারুণ এক গোল। তার খেলা দেখে বোঝার জো নাই যে, বয়স পেরিয়েছে ৩৫।

তবে বেনফিকার বিপক্ষে এদিন ম্যাচটা শেষ করে আসতে পারেননি মেসি। নির্ধারিত সময়ের আগেই তাকে তুলে নেন কোচ। পচেত্তিনোর জায়গায় ক্রিস্তফ গালতিয়ের কোচ হয়ে আসার পর থেকেই পিএসজির জার্সিতে নিজেকে খুঁজে পেয়েছেন মেসি।

এ মৌসুমে জাতীয় দল হোক আর ক্লাব, মেসির পায়ে কথা বলছে বল। সবুজ মাঠে মেসির পায়ের ছোঁয়ায় ফুটছে সুন্দরতম ফুল। এমন মেসিকে দেখতেই তো মাঠে আসে, টিভি পর্দায় নিষ্পলক তাকিয়ে থাকে দর্শক। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বুধবার (৫ অক্টোবর) রাতে পিএসজি মুখোমুখি হয়েছিল দুইবারের চ্যাম্পিয়ন বেনফিকার।

ম্যাচের ২১ মিনিটে লিও মেসির দারুণ গোলে লিড পেয়েছিল পিএসজি। এমবাপ্পেকে বল বাড়িয়ে সামনের দিকে ছুটে গিয়েছিলেন মেসি। নেইমারের পা ঘুরে ডি-বক্সের মাথায় বল পেয়ে বাঁ পায়ের দারুণ বাঁকানো শটে গোল করেন আর্জেন্টাইন জাদুকর।

চলতি মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেসির এটি দ্বিতীয় গোল। আর ইউরোপ সেরার মঞ্চে এটি মেসির ১২৭তম গোল। অবশ্য ৪২ মিনিটে দানিলো পেরেইরার আত্মঘাতী গোলে সমতায় ফেরে বেনফিকা। এরপর ম্যাচটিও শেষ হয়েছে ১-১ গোলের সমতায়। তাতে নিজেদের গ্রুপে সমান পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষ দুইয়েই থাকল দল দুটি।

এদিন ম্যাচের ফল যাই হোক, দর্শক-সমর্থকদের আগ্রহের কেন্দ্রে ছিলেন মেসিই। শুধু গোলের জন্যই নয়, মেসি আলোচনায় আরও এক কারণে। ম্যাচের ৮১ মিনিটে মাঠ থেকে তুলে নেন কোচ ক্রিস্তফ গালতিয়ের। গুরুত্বপুর্ণ ম্যাচে তখনও খেলা সমতায়, এমন সময় মেসিকে তুলে নেয়ায় অবাক বনে যান দর্শকরা।

শঙ্কাও জাগে কিছুটা কারণ মাঠ ছাড়ার সময় যে ক্লান্তির ছাপ স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল মহাতারকার চেহারায়। বিশ্বকাপের ঠিক আগে ইনজুরিতে পড়লেন না তো মেসি? তবে পিএসজি ও আর্জেন্টিনার সমর্থকদের স্বস্তির খবরই দিচ্ছেন পিএসজির কোচ গালতিয়ের। দুশ্চিন্তা করার মতো কিছু হয়নি ৩৫ বছর বয়সী মহাতারকার।

তিনি জানান, ক্লান্তি বোধ করায় নিজে থেকেই বদলির অনুরোধ করেছিলেন মেসি। তার ভাষায়, এক-দুই মিনিট আগে ও বদলি হওয়ার জন্য ইশারা করেছিল। শেষ দৌড়ের সময় ক্লান্তি বোধ করছিল। আর ম্যাচের ওই মুহূর্তে সতেজ কারও মাঠে নামাটাও ভালো ছিল।

মেসির বদলি হিসেবে নেমে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার পাবলো সারাবিয়া অবশ্য করতে পারেননি কিছুই। এর আগে গত মাসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচেই য়্যুভেন্তাসের বিপক্ষে মেসিকে মাঠ থেকে উঠিয়ে নিয়েছিলেন কোচ। প্রায় ৮ বছর পর সেটিই ছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেসির প্রথম বদলির ঘটনা।

এর আগে ২০১৪ সালে বার্সেলোনার হয়ে আয়াক্সের বিপক্ষে বদলি হয়েছিলেন মেসি। এরপর টানা ৬৩ ম্যাচ শুরুর একাদশে নেমে কখনও বদলি হননি আর্জেন্টিনার মহাতারকা। চলতি মৌসুমে লিগ ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ মিলিয়ে পিএসজির খেলা প্রত্যেকটা ম্যাচে খেলেছেন মেসি।

গোল করেছেন ৭টি। বুধবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বেনফিকার বিপক্ষে গোলটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এই আর্জেন্টাইনের ১২৭তম। ১৪০ গোল নিয়ে শীর্ষে থাকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে পেছনে ফেলতে তার আর দরকার মোটে ১৩ গোল।

Check Also

বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানালেন আর্জেন্টিনার কোচ স্কালোনিও

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন বাংলাদেশ কাতার বিশ্বকাপে খেলবে বলে স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন। সেই স্বপ্ন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *